সংবাদ শিরোনাম:

বিয়ে নিয়ে মুখ খুললেন পরমব্রত-অনির্বাণ

‘দ্বিতীয় পুরুষ’-এ পরমের অভিনয় কেমন লাগল?

অনির্বাণ: আমি নিজেই এত ব্যস্ত ছিলাম অভিনয় নিয়ে, অন্যের অভিনয় বিচার করা…

পরমব্রত: আরে ডিপ্লোম্যাটিক উত্তর দিচ্ছিস কেন?

অনির্বাণ: দেখুন, ‘দ্বিতীয় পুরুষ’ করার আগে খুব ওয়ার্কশপ করেছি, বিষয়টা এমনও না। রিনাদির ছবিতে যেমন ভুরু থেকে ডায়েলেক্ট, সব বিষয় নিয়ে ওয়ার্কশপ হয়, সৃজিত সেটা করে না। তাই আমার পরমের ফ্লোরেই কাজ হয়েছে। হ্যাঁ, অভিনয়ে একটা মিলমিশের ব্যাপার থাকে তো। এখানেও সেটাই হয়েছে।

দু’জন জোরালো অভিনেতা। প্রতিদ্বন্দ্বিতার কথা মনে হয়েছে?

অনির্বাণ: আমি থিয়েটার থেকে এসেছি। ফলে ওই মধ্যযুগীয় মানসিকতা একে টপকাব, ওকে ছোট করব, এ সব ফেলে এসেছি।

পরমব্রত: খুব ভাল শব্দ ব্যবহার করেছে। মধ্যযুগীয়। আমি ট্রেনড অ্যাক্টর নই। থিয়েটার থেকে আসিনি। সাহিত্যের ছাত্র। যদিও আমাদের এখানে বলা হয়, সিনেমার জন্য থিয়োরির দরকার নেই। এটা ভুল। যে আর্ট ফর্মের মধ্যে আছি তার ইতিহাস জানতে হবে। আমি তো অভিনেতা হিসেবে নিজেকে ভাবিনি। এ বার সিনেমাকে হোলিস্টিক অ্যাপ্রোচে দেখি। তাই মেরে বেরিয়ে যাব, কিছু সিনিয়র অভিনেতাকে দেখেছি এ রকম করতে। শুধু আমি ভাল করব ভাবলে ছানা কেটে যাবে তো! এটা মধ্যযুগীয়।

 265 total views,  1 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top