পরপর দুই ধর্ষণ, ৪১ দিনে একজনকেও ধরতে পারেনি পুলিশ

ভৈরবে গণধর্ষণসহ দুটি ধর্ষণের ঘটনার ৪১ দিন পার হলেও এখন পর্যন্ত একজন অপরাধীকেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এ নিয়ে জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

গত ১৫ জানুয়ারি ভৈরব বাসস্ট্যান্ডে বাস থেকে নামার পর ১৩ বছরের এক কিশোরী গণধর্ষনের শিকার হয়। খালার সঙ্গে রাগ করে টঙ্গী থেকে বাসে উঠে রাত সাড়ে ৮টায় ভৈরবে পৌঁছে ওই কিশোরী। পরে সিলেট বাসস্ট্যান্ডে যাওয়ার জন্য একটি রিকশায় উঠলে গণধর্ষণের শিকার হয় কিশোরী।

ওই দিন চার যুবক ভৈরব রেলস্টেশনের কাছে কিশোরীকে গণধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ভৈরব রেলওয়ে থানায় মামলা করা হয়। এরই মধ্যে কিশোরীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। পাশাপাশি কিশোরগঞ্জ আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি দেয় কিশোরী। আদালতের আদেশে বর্তমানে কিশোরী টঙ্গীর কিশোর সংশোধন কেন্দ্রে রয়েছে।

এর আগে ভৈরবের কালিকাপ্রসাদ এলাকায় শাকিল নামের এক যুবক পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ করে। ঘটনার দিন ওই যুবক বাড়ির পাশের মাহফিল থেকে ডেকে শিশুটিকে কলাবাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে ডাক্তারি পরীক্ষায় ধর্ষণের প্রমাণ মিললে থানায় মামলা করা হয়।

মামলার পর ধর্ষকের পরিবারের সদস্যরা মামলা তুলে নিতে ১৩ জানুয়ারি নির্যাতিত শিশুর বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এরপরও আসামিকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

ইতোমধ্যে দুটি ঘটনার ৪১ দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত একজন অপরাধীকেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। পুলিশ বলছে, অপরাধীরা পলাতক। তাদেরকে ধরতে বার বার অভিযান চালিয়ে ব্যর্থ হয়েছে পুলিশ।

 269 total views,  2 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top