ধোনিকে এক হাত নিলেন শেবাগ

কথা বলছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলে রিশভ পন্তের একাদশে উপেক্ষিত থাকা নিয়ে। যা বলতে গিয়ে সমালোচনা করলেন বিরাট কোহলির অধিনায়কত্বের। এমনকি এক পর্যায়ে মহেন্দ্র সিং ধোনিকেও টানলেন। রোটেশন পদ্ধতির নামে সিনিয়র ক্রিকেটারদের ছাঁটাই করার নিয়ে ধোনিকে এক হাতই নিলেন বীরেন্দর শেবাগ।

৪১ বছর বয়সী শেবাগ খেলোয়াড়ী জীবনে ছিলেন হার্ডহির্টার ব্যাটসম্যান। প্রতিপক্ষ বোলারদের তুলোধুনো করাই ছিল তার কাজ। ক্রিকেটকে বিদায় বললেও শেবাগ কথাবার্তাতে তার ব্যাটিংয়ের দর্শনই যেন মেনে চলেন। বলার সময় কোনো কিছুই আটকায় না তার মুখে।

ক্রিকবাজের লাইভ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে পন্তকে দিনের পর দিন বসিয়ে থাকা নিয়ে কথা বলেন শেবাগ। এসময় তিনি বলেন, ‘পন্তকে বাদ দেওয়া হচ্ছে। তাহলে কীভাবে ও রান করবে? যদি শচীন টেন্ডুকরকেও বাদ দেওয়া হয়, তাহলে শচীনও রান করতে পারতেন না। যদি ওকে ম্যাচ উইনার হিসেবে ভাবাই হয়, তাহলে খেলানো হচ্ছে না কেন? কারণ ও ধারাবাহিক নয় বলে?’

এরপর ধোনির প্রসঙ্গ টানলেন। ২০১২ সালে ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফরের কথা উল্ল্যেখ করে বলেন, ‘ধোনি অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে বলেছিল, ব্যাটিং অর্ডারের প্রথম তিনজন (শচীন টেন্ডুলকার, গৌতম গম্ভীর ও বীরেন্দ্রর শেবাগ) মন্থর গতির ফিল্ডার।যদিও এই বিষয়ে আমাদের সঙ্গে কোনো রকম কথাবার্তা বলা হয়নি। ’

‘আমরা মিডিয়া থেকেই আমাদের অবস্থা জানতে পারি। ধোনি সাংবাদিক সম্মলনে বলেছিল আমরা স্লো ফিল্ডার। যদিও টিম মিটিংয়ে কোনোদিন ধোনিকে এমন কথা বলতে শুনিনি। ’

শেবাগ যোগ করেন, ‘আমাদের টিম মিটিংয়ে আলোচনা হতো, রোহিত শর্মাকে নিয়ে। নতুন ক্রিকেটার রোহিত শর্মাকে খেলানোর প্রয়োজনীয়তা বলা হত। সেই কারণেই রোটেশন নীতি প্রয়োগ করার কথা বলা হয়েছিল। যদি এখন এটা পন্তের ক্ষেত্রেও হয়ে থাকে, সেটা ভুল। ’

কোহলির নেতৃত্বের সমালোচনাও করেছেন শেবাগ, ‘আমাদের সময়ে অধিনায়ক প্রত্যেক ক্রিকেটারের সঙ্গে কথা বলতেন। আমি জানি না বিরাট এসব করে কিনা!’

কোহলির চেয়ে অধিনায়ক হিসেবে রোহিতের প্রসংশাও করেছেন শেবাগ, ‘আমি দলের পরিকল্পনায় ছিলাম না। তবে অনেকেই বলেন, রোহিত শর্মা যখন এশিয়া কাপে গিয়েছিল অধিনায়ক হিসেবে, তখন কিন্তু ও সকলের সঙ্গে কথা বলত। ’

 271 total views,  2 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top