ধর্ষণে অভিযুক্ত বিজেপি মন্ত্রীর জামিন

আইন পড়ুয়া এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ভারতের সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন বিজেপির প্রবীণ নেতা চিন্ময়ানন্দকে জামিন দিয়েছেন দেশটির আদালত। গত সেপ্টেম্বরে গ্রেফতার হওয়া বিজেপির ওই প্রবীণ নেতাকে ভারতের উত্তরপ্রদেশের এলাহাবাদ হাইকোর্ট সোমবার জামিন দিয়েছেন। খবর এনডিটিভির।

সাবেক এই মন্ত্রীর বিরুদ্ধে তারই ট্রাস্ট পরিচালিত আইনের কলেজের শিক্ষার্থী ধর্ষণের অভিযোগে বিচার চলছে। বিজেপির এই নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি তার অবস্থানের সুযোগ নিয়ে ওই তরুণীকে বলপূর্বক যৌন নিপীড়ন করেছেন। তবে অভিযোগপত্রে বল‌া হয়েছে, এক্ষেত্রে যৌন সম্পর্ককে ধর্ষণের অপরাধ হিসেবে গণ্য করা যাবে না।

মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের প্রমাণ দেখানোর পর গত ২৫ সেপ্টেম্বর তরুণীকে গ্রেফতার করে দেশটির পুলিশ। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি চিন্ময়ানন্দের কাছ থেকে ৫ কোটি টাকা চেয়েছিলেন। পরিবারের অভিযোগ, বাড়ি থেকে তরুণীকে জোর করে তুলে নিয়ে যায় পুলিশ। গ্রেফতার হওয়ার ২ মাস পর গত ডিসেম্বরে জামিন হয় তার।

তবে অভিযুক্ত ভারতের সাবেক এই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর দাবি, অভিযোগকারী ওই তরুণী ও তার বন্ধুরা কয়েকটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করার হুমকি দিয়েছিলেন তাকে। গত ২৪ আগস্ট ফেসবুকে কারও নাম উল্লেখ না করে ধর্ষণের কথা জানিয়ে নিখোঁজ হয়েছিলেন তরুণী। তারপরই প্রথম এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসে।

সপ্তাহখানেক বাদে তরুণীকে খুঁজে পায় উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। সুপ্রিম কোর্ট তরুণীর অভিযোগ শোনার পর বিশেষ অনুসন্ধানকারী দলকে তদন্তের নির্দেশ দেয়। ধর্ষণের সময় সাবেক ওই মন্ত্রী ভিডিও ধারণ করেন বলে অভিযোগ করেন তরুণী। তার দাবি, সেই ভিডিও দেখিয়ে পরবর্তীতে একাধিকবার তাকে ব্ল্যাকমেইল ও ধর্ষণ করেন চিন্ময়ানন্দ।

 97 total views,  1 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top