মানবিক বিবেচনায় খালেদাকে মুক্তি দিন: সেলিমা

উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা না হলে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অবস্থা ভবিষ্যতে কি হবে- তা নিয়ে অনিশ্চিত তার পরিবার।

মঙ্গলবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক‌্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে তার বোন সেলিমা ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘ওনার (খালেদা জিয়া) উন্নত চিকিৎসার খুবই প্রয়োজন। ওনার শরীর এত খারাপ, এই মুহূর্তে ওনাকে যদি উন্নত চিকিৎসা না দেয়া যায়, তাহলে ওনার যে কি হবে, তা আমরা বলতে পারছি না।’

সেলিমা ইসলাম বলেন, ‘তার শরীর খুবই খারাপ। তিনি শ্বাসকষ্টে ভুগছেন। কথাই বলতে পারছেন না। উঠে দাঁড়াতে পারেন না। বাম হাত তো সম্পূর্ণভাবে বেঁকে গেছে। এখন ডান হাতটাও বেঁকে যাচ্ছে। খেলে বমি হচ্ছে। জ্বর আছে, গায়ে প্রচণ্ড ব্যথা। গায়ে হাত দিলেই চিৎকার করছে। মানবিক দিক চিন্তা করে ওনার মুক্তি দাবি করছি আমরা।’

খালেদা জিয়ার মুক্তি চেয়ে বিশেষ আবেদনের কথা নিয়ে সেলিমা ইসলাম বলেন, ‘আমরা এখনো আবেদন করিনি। আমরা জাতির কাছে আবেদন করছি, আপনারা ওনার জন্য দোয়া করবেন এবং ওনার মুক্তি যেন হয়, সেই চেষ্টা আপনারা করবেন।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে সেলিমা বলেন, এখানে যে চিকিৎসা হচ্ছে তাতে তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছে না। আজকেও ফাস্টিং সুগার ১৪-১৫ ছিল। বিছানা থেকে বাথরুম পর্যন্ত দুই-তিন হাত জায়গা হবে, তা যেতে ২০ মিনিট সময় লাগে।

এর আগে বেলা সাড়ে তিনটার দিকে খালেদা জিয়ার কেবিনে প্রবেশ করেন স্বজনরা। সেখান থেকে বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে তারা বেরিয়ে আসেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার জানান, স্বজনদের মধ্যে ছিলেন ছোট ভাইয়ের স্ত্রী কানিজ ফাতিমা, তার ছেলে অভিক এস্কান্দার, তারেক রহমানের স্ত্রীর বড় বোন শাহিনা জামান খান বিন্দু ও কোকোর শাশুড়ি মূকরেমা রেজা (ফাতিমা রেজা)।

 373 total views,  1 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top