সংবাদ শিরোনাম:
«» অবশেষে হিরো আলমের আইডি উদ্ধার করে দিলো সিআইডি «» মন ফ্রেশ করতে সাজেক ভ্যালি ঘুরে আসুন মাত্র ৩০০০ টাকায় «» বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি নির্বাচিত হলেন মোঃ আলী আড্ডু «» ২৫ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ঘোষণা «» তামিমের দুর্দান্ত হাফ সেঞ্চুরিতে বনিশালের ৫ উইকেটে জয় «» সরকার বেঁধে দেওয়া দামে বিক্রি হচ্ছে না আলু পেঁয়াজ «» ফিফার র‌্যাঙ্কিংয়ে তিন ধাপ উন্নতি বাংলাদেশ ফুটবল দলের «» সারাদেশে বাড়ছে ডেঙ্গু রোগী: গত ২৪ ঘণ্টায় ২৯ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি «» প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার জন্য আসছে ৬৫০ সিসির মটরসাইকেল «» প্রধানমন্ত্রী যারা আপনার ঘাড়ের ওপর বসে আছে, তারাই আপনার ক্ষতি করবে: বাবুনগরী

ড্রোন নিবন্ধন ও উড্ডয়ন নীতিমালা: ৫০০ ফুটের ওপরে যেতে পারবে না ড্রোন

নিজস্ব প্রতিবেদক

ড্রোন নিবন্ধন ও উড্ডয়ন নীতিমালা ২০২০-এর খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। নীতিমালায় বলা হয়েছে, বিনোদনের জন্য বা বাচ্চাদের খেলনা হিসেবে পাঁচ কেজি ওজনের নিচে ড্রোন অনুমতি ছাড়া উড্ডয়ন করা যাবে। তবে ৫০০ ফুটের ওপরে যেতে পারবে না।
আজ সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়াল এই বৈঠক হয়। পরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

ড্রোন নীতিমালা অনুযায়ী, অবাণিজ্যিক ও বাণিজ্যিক হলে ড্রোন ব্যবহারে অনুমতি লাগবে। আর রাষ্ট্রীয় ও সামরিক কাজে ব্যবহারের জন্য অনুমতি লাগবে না।
এখন থেকে সিটি করপোরেশনে মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার আগের তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন করতে হবে। আর নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলররা শপথ গ্রহণের ১৫ দিনের মধ্যে দায়িত্ব নেবেন এবং প্রথম বৈঠক হবে।

নতুন এই বিধান যুক্ত করে স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) (সংশোধন) আইন ২০২০ খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। বর্তমানে মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার আগের ছয় মাসের মধ্যে নির্বাচন করতে হয়। এ ছাড়া শপথ নিলেও আগের নির্বাচিত ব্যক্তিদের সিটি করপোরেশনের মেয়াদ পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়।
প্রস্তাবিত আইন অনুযায়ী সিটি নির্বাচনে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা বছরে তিন মাসের বদলে এক মাস ছুটি পাবেন।

বৈঠকে প্রতিবছর ৮ আগস্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী উদ্‌যাপন করার সিদ্ধান্ত হয় এবং দিনটি মন্ত্রিপরিষদের এ–সংক্রান্ত পরিপত্রের ‘ক’ ক্রমিকে অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত হয়।

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, করোনার কারণে এখন কেন্দ্রীয়ভাবে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার মতো অবস্থা নেই। সংশ্লিষ্টরা যার যার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেবে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়।

 1,717 total views,  3 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top