স্বামীকে খুঁজতে এসে গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূ

পিরোজপুর থেকে স্বামীকে খুঁজতে এসে স্বরূপকাঠিতে গণধর্ষনের শিকার হয়েছেন এক এক গৃহবধু।

শুক্রবার রাতে সোহাগদল গ্রামের পঞ্চায়েত বাড়ি এলাকায় ধর্ষণের শিকার হন দুই সন্তানের জননী ওই গৃহবধূ। শনিবার বিকেলে ধর্ষিতা নারী বাদী হয়ে মোটরসাইকেল চালক মো.আহসান কবিরসহ আরো এক অজ্ঞাতনামাকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন।

রোববার দুপুরে অভিযুক্ত আহসান কবিরকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

আহসান কবির (৫০) সোহাগদল গ্রামের মজিবুর রহমান নাজেমের পুত্র। পেশায় ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালক। সে নিজেকে বিভিন্ন সময় সাংবাদিক বলেও পরিচয় দেয়।

ধর্ষনের শিকার গৃহবধূকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পিরোজপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, স্বামী অভিমান করে বেশ কিছুদিন যাবত পিরোজপুর থেকে ইন্দুরহাট বন্দর এলাকায় এসে সেখানে থেকে কাজকর্ম করে। স্বামীকে খুঁজতে এসে মোটরসাইকেল চালক কবিরের সাথে পরিচয় হয়্ গৃহবধূর। পরে প্রতারণা করে কবির গভীর রাতে নিজের বাড়িতে নিয়ে তার আরো এক সহযোগীসহ ওই গৃহবধূকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। শনিবার স্থানীয়দের সহায়তায় নেছারাবাদ থানায় গিয়ে মামলা করেন ধর্ষণের শিকার নারী।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নেছারাবাদ (স্বরূপকাঠি) থানার ওসি তদন্ত মো.সোলায়মান বলেন, ধর্ষণের শিকার ওই নারীর অভিযোগ পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে রোববার দুপুরে ধর্ষক কবিরকে আটক করেছে। কবিরের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অপর ধর্ষক লাভলু হাওলাদার ওরফে লাট্টুকেও গ্রেফতার করা হয়েছে।

নেছারাবাদ থানার ওসি আবির মোহাম্মদ হোসেন বলেন, ভিকটিম নিজেই বাদী হয়ে মামলা করার পর পুলিশ অভিযানে নামে। ধর্ষণের সাথে জড়িত দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 101 total views,  1 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top