করোনার নতুন ধরন নিয়ে যে কারণে এতো ভয়

অনলাইন ডেস্ক: দক্ষিণ আফ্রিকায় ছড়াচ্ছে করোনা ভাইরাসের নতুন একটি ধরন। এ ধরনটি নিয়ে বিশ্বজুড়ে বিজ্ঞানীরা চিন্তিত। যুক্তরাজ্য বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, তারা রীতিমতো উদ্বিগ্ন।

যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্য সুরক্ষা এজেন্সি জানিয়েছে, করোনার এ ধরনকে বলা হচ্ছে- বি.১.১.৫২৯। এর মধ্যে যে স্পাইক প্রোটিন আছে, তা অন্য করোনা ভাইরাসের চেয়ে একেবারেই আলাদা।

তাদের দাবি, এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের যতগুলো ধরনের সন্ধান পাওয়া গেছে, তার মধ্যে এটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এ ধরন কতটা ভয়ঙ্কর, ভ্যাকসিন তাতে কাজ করবে কি না, কতটা দ্রুত তা ছড়ায়- সবই গবেষকরা পরীক্ষা করে দেখছেন।

যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্য সচিব বলেছেন, প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, এ ধরন অনেক দ্রুত ছড়ায়। আর এখন যে ভ্যাকসিন চালু আছে, তা এর উপর খুব বেশি কার্যকর হবে না।

যুক্তরাজ্য ইতোমধ্যেই দক্ষিণ আফ্রিকা, নামিবিয়া, জিম্বাবোয়ে, বতসোয়ানাসহ মোট ছয়টি দেশে যাতায়াতের উপর কড়াকড়ি চালু করেছে।

শুক্রবার বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থা বৈঠকে বসেছে। সেখানে করোনার এ ধরন নিয়ে আলোচনা করা হবে এবং তার একটা নামও দেয়া হবে।

নতুন প্রজাতির করোনা ভাইরাস নিয়ে ভারতেও সতর্কতা জারি করা হয়েছে। বিমানবন্দরে বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের করোনা পরীক্ষার বিষয়টি নিয়ে আরও কড়াকড়ি করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বিশেষ করে দক্ষিণ আফ্রিকা ও তার আশপাশের দেশ থেকে যারা আসছেন, তাদের ক্ষেত্রে কড়াকড়ি করার কথা বলা হয়েছে। সূত্র: ডয়চে ভেলে।

 57 total views,  1 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top