পুলিশ মেসে ধর্ষণ, কনস্টেবলসহ ৪ জন কারাগারে

অনলাইন ডেস্ক: নোয়াখালীতে অটোচালকের সহায়তায় ট্রাফিক পুলিশের মেসে নিয়ে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে কনস্টেবলসহ চারজনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে সুধারাম মডেল থানা সংলগ্ন ট্রাফিক পুলিশের কোয়ার্টারে বৃহস্পতিবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে। পরে ওই দিনই ভুক্তভোগীর মা চার জনকে আসামি করে সুধারাম থানায় মামলা করলে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গ্রেপ্তার চারজন হলেন- ট্রাফিক কনস্টেবল মুকবুল হোসেন, তার তিন সহযোগী অটোচালক কামরুল, নুর হোসেন কালু ও আবদুল মান্নান।

সুধারাম থানার ওসি মোহাম্মদ সাহেদ উদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলার সেনবাগ উপজেলার বাসিন্দা ওই তরুণী ফেনী থেকে মাইজদী আসেন। এরপর তার টাকার প্রয়োজন হলে পূর্বপরিচিত অটোচালক কামরুলের সঙ্গে দেখা করলে তারা কামরুলসহ আবদুল মান্নান ও নুর হোসেন কালু তাকে সদর ট্রাফিক পুলিশের কনস্টেবল (মুন্সি) মকবুল হোসেনের কাছে নিয়ে যান। এ সময় তাদের সহযোগিতায় মকবুল হোসেন ভুক্তভোগীকে ট্রাফিক পুলিশের একটি কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করে।

ওসি আরও জানান, ওই মামলায় আসামিদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে শুক্রবার আদালতে পাঠানো হলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এছাড়া ভুক্তভোগীর শারীরিক পরীক্ষার জন্য তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 34 total views,  1 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top