ভারতে করোনার বুস্টার ডোজ দেয়া শুরু

অনলাইন ডেস্ক: সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে সোমবার থেকে স্বাস্থ্যসেবা কর্মী, প্রথমসারির কর্মী এবং শারীরিক জটিলতা রয়েছে- এমন ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তিদের করোনার টিকার বুস্টার ডোজ দেয়া শুরু হচ্ছে।

আনন্দবাজার অনলাইনের খবরে বলা হয়, বর্তমানে চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের বড় অংশ করোনা সংক্রমিত। এ পরিস্থিতিতে কি আদৌ তারা তৃতীয় টিকা নিতে পারবেন, এই প্রশ্ন উঠছে।

এ বিষয়ে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশিকায় স্পষ্ট করে কিছু বলা হয়নি। গত বছর মে মাসে জারি করা নির্দেশিকায় বলা হয়েছিল, প্রথম টিকা নেয়ার পর যারা কোভিড পজিটিভ হয়েছেন, তাদের দ্বিতীয় টিকা নিতে অন্তত তিন মাস অপেক্ষা করতে হবে।

কিন্তু তৃতীয় টিকা সংক্রান্ত নির্দেশিকায় এ ব্যাপারে কিছু বলা নেই। ফলে চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে এ নিয়ে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশিকা অনুযায়ী, তৃতীয় টিকা নেয়ার জন্য আগে থেকে কোউইন অ্যাপে নাম নথিভুক্ত করার প্রয়োজন নেই। টিকাদান কেন্দ্রে গিয়ে নাম নথিভুক্ত করালেই এ বুস্টার টিকা পাওয়া যাবে।

স্বাস্থ্যকর্মী, প্রথম সারির কর্মীরা ছাড়া ষাটোর্ধ্ব যেসব ব্যক্তির উচ্চ রক্তচাপ, ডায়বেটিস এবং অন্য কোন অসুখ রয়েছে, তারা চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে এ টিকা নিতে পারবেন।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দ্বিতীয় টিকা নেয়ার অন্তত ৯ মাস পর এই বুস্টার টিকা নেয়া যাবে। প্রথম এবং দ্বিতীয় টিকার মতোই তৃতীয় টিকা এক হতে হবে। কোনও মিশ্রণ চলবে না। অর্থাৎ, যারা কোভ্যাকসিন নিয়েছেন, তাদের ওই টিকাই নিতে হবে। আবার যারা কোভিশিল্ড নিয়েছেন, তাদেরও তৃতীয় টিকা কোভিশিল্ডেরই নিতে হবে।

 33 total views,  1 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top