সংবাদ শিরোনাম:

সাইফের ডাবল-সেঞ্চুরিতে রানের পাহাড় গড়লো ঢাকা বিভাগ

২১তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) দ্বিতীয় রাউন্ডের প্রথম স্তরের ম্যাচে রংপুর বিভাগের বিপক্ষে ডাবল-সেঞ্চুরি করলেন ঢাকা বিভাগের ডান-হাতি ব্যাটসম্যান সাইফ হাসান। তার অপরাজিত ২২০ রানের সুবাদে রানের পাহাড় গড়ে ৮ উইকেটে ৫৫৬ রানে ইনিংস ঘোষনা করে ঢাকা বিভাগ। জবাবে দ্বিতীয় দিন শেষে ২ উইকেটে ৭১ রান তুলেছে রংপুর বিভাগ। ৮ উইকেট হাতে নিয়ে ৪৮৫ রানে পিছিয়ে রংপুর। গতকাল, ম্যাচের প্রথম দিনই ১২০ রানের ইনিংস খেলে আহত অবসর নেন সাইফ। তার ব্যাটিং নৈপুণ্যে প্রথম দিন শেষে ৯০ ওভারে ৪ উইকেটে ৩১৪ রান করেছিলো ঢাকা বিভাগ।
চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় দিন ব্যাট হাতে নামেন আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান শুভাগত হোম ও সুমন খান। শুভাগত ৮ ও সুমন ২ রান নিয়ে শুরু করেন। শুভাগত ১৭ ও সুমন ২৪ রান করে ফিরেন।
এরপর অধিনায়ক নাদিফ চৌধুরির সাথে ১০০ রানের জুটি গড়েন সাইফ। ৬টি চার ও ২টি ছক্কায় ৭৫ বলে ৬১ রান করেন নাদিফ। দুই লোয়ার-অর্ডার ব্যাটসম্যান উইকেটরক্ষক জয়রাজ শেখ ও নাজমুল ইসলামের সাথে দু’টি অর্ধশতকের জুটি গড়েন সাইফ। এরমাঝেই ডাবল-সেঞ্চুরির স্বাদ নেন তিনি। ১৬০তম ওভার শেষে নিজেদের ইনিংস ঘোষনা করে ঢাকা বিভাগ। ১৯টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৩২৯ বল মোকাবেলা করে ২২০ রান করেন সাইফ। ৪৮৮ মিনিট ব্যাট করে প্রথম শ্রেনির ক্রিকেটে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলেন সাইফ। এছাড়া জয়রাজ ২৬ ও নাজমুল অপরাজিত ১৮ রান করেন। রংপুরের সোহরাওয়ার্দি শুভ ও সঞ্জিত সাহা ৩টি করে উইকেট নেন।
ঢাকা বিভাগের ইনিংস শেষে ব্যাট হাতে নেমে ২ উইকেট হারিয়ে বসেছে রংপুর বিভাগ। উইকেটরক্ষক ও ওপেনার হামিদুল ইসলাম ৯ ও মাহমুদুল হাসান শুন্য রান করে ফিরেন। তবে অন্যপ্রান্ত দিয়ে রানের চাকা সচল রেখেছেন ওপেনার লিটন দাস। ৮টি চারে ৬৪ বল মোকাবেলা করে হাফ-সেঞ্চুরি তুলে ৫১ রানে অপরাজিত আছেন লিটন। তার সঙ্গী নাইম ইসলামের সংগ্রহ ৮ রান। রংপুরের পতন হওয়া দু’টি উইকেটই নিয়েছেন সালাউদ্দিন শাকিল। ৭ ওভার বল করে ১৬ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন তিনি।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
ঢাকা বিভাগ : ৫৫৬/৮ ডি, ১৬০ ওভার (সাইফ ২২০*, রনি ৬৫, সাহা ৩/৮৯)।
রংপুর বিভাগ : ৭২/২, ১৮ ওভার (লিটন ৫১*, নাইম ৮*, শাকিল ২/১৬)।

 542 total views,  1 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top