রাজশাহীতে সাংবাদিককে ওসির প্রাণনাশের হুমকি

নিজস্ব প্রতিবেদক:
রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারন চন্দ্র বর্মনের বিরুদ্ধে সিনিয়র সাংবাদিক সুজাউদ্দিন ছোটনকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ উঠেছে। তিনি বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেল এটিএন বাংলায় কাজ করেন। প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগে সিনিয়র সাংবাদিক সুজাউদ্দিন ছোটন আজ রোববার রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিকের কাছে ওসি নিবারন চন্দ্র বর্মনের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে বলা হয়েছে, ওসি নিবারন চন্দ্র বর্মন সাংবাদিক ছোটনের সম্পর্কে আজেবাজে কথা বলে আসছিলেন। ছোটন এসব গুরুত্ব দেননি। কিন্তু গত বৃহস্পতিবার ওসি আবারও একব্যক্তির সামনে সাংবাদিক ছোটনকে নিয়ে আজেবাজে কথা বলেন এবং তাকে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেন। ওসির এমন হুমকির কারণে সাংবাদিক ছোটন আতঙ্কিত বলে অভিযোগে উল্লেখ করেছেন। ওসি যে ব্যক্তির সামনে সাংবাদিক ছোটনকে হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। ওই ব্যক্তি বলেন, শুধু সাংবাদিক ছোটনই নয়, অন্যান্য সাংবাদিকদের সম্পর্কেও ওসি নিবারন চন্দ্র বর্মন খারাপ মন্তব্য করছিলেন। সম্প্রতি ওসিকে নিয়ে গণমাধ্যমে নেতিবাচক সংবাদ

প্রকাশ হওয়ায় তিনি অন্যান্য সাংবাদিকদেরও দেখে নেয়ার হুমকি দিয়েছেন।
এদিকে, শুধু সাংবাদিক ছোটন নয় তিনি ছাড়াও আরো ৫/৬ রাজশাহীর সিনিয়র সাংবাদিককে হত্যার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ উঠেছে ওসির বিরুদ্ধে। তারা হলেন, যুগান্তরের ব্যুরো প্রধান আনু মোস্তফা, খবর ২৪ ঘণ্টার চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম জুলু, কালের কণ্ঠের নিজস্ব প্রতিবেদক রফিকুল ইসলাম, ঢাকার সাংবাদিক ইমরান হোসেনসহ আরো কয়েকজন। এ বিষয়ে কথা বলতে বোয়ালিয়া থানার ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মন এর সাথে মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি রিসিভ করেন নি।

অভিযোগ দেয়ার পর রোববার সকালে সিনিয়র সাংবাদিক আনু মোস্তফা, সুজাউদ্দিন ছোটন, সিনিয়র সাংবাদিক নজরুল ইসলাম জুলু, কালের কণ্ঠের রফিকুল ইসলাম,

যুগান্তরের তানজিমুল হকসহ বেশ কয়েকজন সিনিয়র সাংবাদিক আরএমপি কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিকের সাথে সাক্ষাত করেন। সাক্ষাতকালে কমিশনার সাংবাদিকদের আশ্বস্ত করে বলেন, আমি সাংবাদিকদের সাথে মিলেমিশে কাজ করতে চাই। এমন ঘটনা ঘটে থাকলে সত্যি এটি খুব দুঃখজনক। বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে নিয়ে তদন্ত করে দেখা হবে। এ ছাড়াও বোয়ালিয়া থানার এসআই গোলাম মোস্তফা, উত্তম কুমার, আব্দুল মতিনসহ বিভিন্ন এসআইয়ের বিতর্কিত কর্মকাণ্ড কমিশনারকে অবহিত করলে তিনি তা খোঁজ নিয়ে ব্যবস্তা গ্রহণের দাবি জানান।

 211 total views,  1 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top