কাতারের বিপক্ষে সহজেই জিতেছে ‘নতুন’পর্তুগাল

নেই দলের সেরা তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। আগের ম্যাচ থেকে একাদশে পরিবর্তন ১১টি! তবু কাতারের বিপক্ষে সহজেই জিতেছে পর্তুগাল। হাঙ্গেরিতে শনিবার আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে ৩-১ গোলে জেতে ফের্নান্দো সান্তোসের দল। বিশ্বকাপের স্বাগতিক দেশ কাতার অবশ্য প্রথমার্ধের শেষ দিকে ১০ জনের দলে পরিণত হয়। দ্বিতীয়ার্ধের শেষ দিকে লাল কার্ড দেখেন দলটির আরও একজন। পর্তুগালের হয়ে একটি করে গোল করেন আন্দ্রে সিলভা, অভিষিক্ত ওতাভিও ও ব্রুনো ফের্নান্দেস। কাতারের একমাত্র গোলটি করেন আবদেলকরিম হাসান। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে গত বুধবার রিপাবলিক অব আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ দিকে রোনালদোর জোড়া গোলে ২-১ ব্যবধানে জেতে পর্তুগাল। হলুদ কার্ডের খাঁড়ায় এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা পাওয়ায় জাতীয় দল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে সর্বোচ্চ গোলের মালিক রোনালদোকে। তাই বাছাইয়ে পরের ম্যাচে আজারবাইজানের বিপক্ষেও খেলা হবে না কিছুদিন আগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ফেরা এই তারকার। কাতার শুরুটা করে আত্মবিশ্বাসী। নবম মিনিটে এগিয়েও যেতে পারত তারা। কিন্তু আবদেলআজিজ হাতিমের শট পোস্টে লাগে। ষোড়শ মিনিটে তার আরেকটি প্রচেষ্টা ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক। নিজেদের গুছিয়ে নিতে একটু সময় নেওয়া পর্তুগাল ৯০ সেকেন্ডের মধ্যে দুই গোল করে এগিয়ে যায়। ২৩তম মিনিটে সতীর্থের ক্রসে হেডে প্রথম গোলটি করেন অরক্ষিত আন্দ্রে সিলভা। পরের মিনিটে হেডেই জালের দেখা পান এই ম্যাচ দিয়ে জাতীয় দলে অভিষেক হওয়া ওতাভিও। প্রথমার্ধের শেষ দিকে বড় ধাক্কা খায় কাতার। ডি-বক্সের মাথায় পর্তুগালের গনসালো গেদেসকে ফাউল করে বসেন গোলরক্ষক মেশাল বারশাম। ভিএআরের সাহায্যে তাকে লাল কার্ড দেখান রেফারি। একজন মিডফিল্ডার উঠিয়ে নতুন গোলরক্ষক নামায় কাতার। ৬১তম মিনিটে দারুণ হেডে ব্যবধান কমান হাসান। নির্ধারিত সময়ের পাঁচ মিনিট বাকি থাকতে দিয়োগো জটা ডি-বক্সে ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টি পায় পর্তুগাল। রেফারির ওই সিদ্ধান্ত নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন কাতারের বুয়ালেম। সফল স্পট কিকে ব্যবধান বাড়ান ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মিডফিল্ডার ফের্নান্দেস। ইউরোপিয়ান অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে আগামী মঙ্গলবার আজারবাইজানের মাঠে খেলবে পর্তুগাল।

 26 total views,  1 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top