বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে নিয়ে মিথ্যা বলা হচ্ছে: খন্দকার মোশাররফ

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে নিয়ে মিথ্যা বলে হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, এসব মিথ্যা কথা বলে জাতিকে বিভ্রান্ত করা যাবে না। এগুলো উচিত না। আমি বিশ্বাস করি, জাঁতি বিভ্রান্ত নয়; জাতি সবকিছু জানে। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) আয়োজিত ‘ইতিহাস বিকৃতি, ঘৃণার চাষ ও গণমাধ্যমের ভূমিকা’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন। খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, খালেদা জিয়াকে জেলে আটকে রেখে, তারেক রহমানকে দেশে আসতে না দিয়ে আওয়ামী লীগ ঘৃণার চর্চা করছে। জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধের বিষয়ে তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানকে বীর উত্তম উপাধি মুক্তিযুদ্ধে তার অবদানের কারণে দেওয়া হয়েছিল। এটাও কেড়ে নেওয়ার জন্য ষড়যন্ত্র হচ্ছে। বিএনপির এই নেতা বলেন, হত্যার পর জিয়াউর রহমানকে চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের পাশে একটি পাহাড়ে পুঁতে রাখা হয়েছিল। সেই লাশ খুঁজে বের করে চট্টগ্রামের সিএমএইচে নিয়ে ময়নাতদন্ত করা হয়। ময়নাতদন্ত করেন লেফটেন্যান্ট কর্নেল তোফায়েল। সেখানে সাক্ষী আছে। এরপর তার লাশ সেনাবাহিনীর সদস্যরা ঢাকায় নিয়ে আসেন। তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতি এবং তিন বাহিনীর প্রধান সেই লাশ গ্রহণ করেন। তার লাশের পাশে আত্মীয়-স্বজন, স্ত্রী-সন্তান কান্না করছেন এমন ছবিও আছে। তার জানাজায় লাখো মানুষ দাঁড়ায়েছিল। আলোচনায় নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, কোনও সত্য চাপা রাখা যায় না। জিয়াউর রহমানকে নিয়ে যারা এখন বিতর্ক তৈরির চেষ্টা করছেন; তারা ইতিহাস তৈরি নয়, আমার-আপনার দৃষ্টি প্রকৃত ঘটনা থেকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএফইউজের সভাপতি এম আব্দুল্লাহ, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম, ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন-সাদা দলের আহ্বায়ক ওবায়দুল ইসলাম, সংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদ, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মুরসালিন নোমানী, বিএফইউজে সভাপতি রাশেদুল ইসলাম প্রমুখ।

 26 total views,  1 views today

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের, তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Top